চৈতন্যদেবের জীবনের কালপঞ্জি

 
চৈতন্যদেবের জীবনের প্রধান প্রধান ঘটনাগুলির প্রামাণিক সময়কাল  উল্লেখ করা হলো। সাহায্য নেওয়া হয়েছে সুখময় মুখোপাধ্যায়ের লেখা গ্রন্থ।
 
 
[ads id=”ads1″]
ঘটনাবলিখ্রিস্টাব্দশকাব্দ
জন্ম১৪৮৬ খ্রি. ১৮ ফেব্রুয়ারি১৪০৭ শকাব্দ, ২৩ ফাল্গুন, দোলপূর্ণিমা, শনিবার, সন্ধ্যা প্রায় ৬টায়
নামকরণ১৪৮৬ খ্রি. ৯ মার্চ১৪০৭ শকাব্দ, ১২ চৈত্র
উপনয়ন১৪৯৪ খ্রি ৮ এপ্রিল১৪১৬ শকাব্দ, অক্ষয়তৃতীয়া
পিতৃবিয়োগআনু. ১৪৯৭ খ্রি 
লক্ষ্মীদেবীর সঙ্গে বিবাহ১৫০১ – ১৫০২ 
অধ্যাপনা শুরুআনু. ১৫০৫ 
পূর্ববঙ্গ ভ্রমন ও লক্ষ্মীদেবীর মৃত্যু আনু. ১৫০৬ 
বিষ্ণুপ্রিয়া দেবীর সঙ্গে বিবাহ আনু. ১৫০৭ 
গয়া যাত্রা১৫০৮ খ্রি 
গয়া থেকে প্রত্যাবর্তন১৫০৮ খ্রি. ডিসেম্বরের শেষ১৪০৩ শকাব্দ, পৌষের শেষ
সংকীর্তন ও ভাব প্রকাশ আরম্ভ১৫০৯ খ্রি. জানুয়ারির প্রথম১৪৩০ শকাব্দ, মাঘের শুরু
অধ্যাপনা ত্যাগ১৫০৯ এপ্রিল১৪৩১ শকাব্দ, বৈশাখ
সংকীর্তনাদির অবসান১৫০৯, ডিসেম্বরের শেষ১৪৩১ শক, পৌষের শেষ
গৃহত্যাগ১৫১০, ২৫ জানুয়ারি১৪৩১ শক, ২৭ মাঘ
সন্ন্যাস গ্রহণ১৫১০, ২৬ জানুয়ারি১৪৩১ শক ২৯ মাঘ
নিত্যানন্দের সঙ্গে রাঢ়দেশে ভ্রমন১৫১০, ২৭-২৮-২৯ জানুয়ারি১৪৩১ শক, ১-২-৩ ফাল্গুন
ফুলিয়ায় হরিদাসের গৃহে আগমন১৫১০ ৩০ জানুয়ারি১৪৩১ শক, ৪ ফাল্গুন
শান্তিপুরে অদ্বৈতের গৃহে আগমন১৫১০, ১ ফেব্রুয়ারি১৪৩১, ৬ ফাল্গুন
শান্তিপুর ত্যাগ ও নীলাচল গমন১৫১০, ৪ ফেব্রুয়ারি১৪৩১, ৯ ফাল্গুন
নীলাচলে দোলযাত্রা দর্শন১৫১০, ২৩ ফেব্রুয়ারি১৪৩১, ২৮ ফাল্গুন
বাসুদেব সার্বভৌমের উদ্ধার ১৫১০ মার্চ১৪৩১, চৈত্র
নীলাচল থেকে দক্ষিণ ভারত অভিমুখে যাত্রা১৫১০, এপ্রিলের প্রথম১৪৩২, বৈশাখের প্রথম
শ্রীরঙ্গক্ষেত্রে উপনীতি১৫১০, জুন১৪৩২, আষাঢ়
শ্রীরঙ্গক্ষেত্র থেকে সেতুবন্ধের দিকে যাত্রা১৫১০, শরৎকাল 
গোদাবরীতীরে রায় রামানন্দের গৃহে আগমন১৫১১, শরৎকাল 
নীলাচলে প্রত্যাবর্তন, জগন্নাথদেবের স্নানযাত্রা দর্শন, পুনরায় নীলাচল ত্যাগ এবং গোদাবরীতীরে যাত্রা১৫১২ মে১৪৩৪ শক, জ্যৈষ্ঠ
রায় রামানন্দের সঙ্গে গোদাবরী-তীর থেকে নীলাচল প্রত্যাবর্তন১৫১২, হেমন্তকাল 
নীলাচল থেকে বাংলা অভিমুখে যাত্রা১৫১৪, ২৮ সেপ্টেম্বর১৪৩৬, বিজয়াদশমী
বাংলা থেকে নীলাচলে প্রত্যাবর্তন১৫১৫, জুন১৪৩৭, আষাঢ়
নীলাচল থেকে ঝারিখণ্ডের পথে বৃন্দাবন অভিমুখে যাত্রা১৫১৫, শরৎকাল 
বৃন্দাবন থেকে প্রয়াগে গমন। প্রয়াগে দশদিন বাস১৫১৬, জানুয়ারির প্রথম১৪৩৭, মাঘের প্রথম
প্রয়াগ থেকে কাশী আগমন১৫১৬, জানুয়ারির মাঝামাঝি 
কাশী থেকে বাংলার দিকে যাত্রা। নবদ্বীপে আগমন১৫১৬, ফেব্রুয়ারির শেষ১৪৩৭, ফাল্গুনের শেষ
শান্তিপুরে অদ্বৈতের গৃহে ভোজন১৫১৬, ১৫ মার্চ১৪৩৭, চৈত্র মাসের শুক্লা দ্বাদশী
নীলাচলে প্রত্যাগমন, জগন্নাথদেবের স্নানযাত্রা দর্শন,। ১৮ বছর নীলাচলে বাস।১৫১৬, মে১৪৩৮, জ্যৈষ্ঠ
উৎকলরাজ প্রতাপরুদ্রের সঙ্গে মহাপ্রভুর প্রথম সাক্ষাৎকারআনু. ১৫১৬ 
মহাপ্রভুর দিব্যোন্মাদ অবস্থা আরম্ভ১৫২১ খ্রি. 
হরিদাস ঠাকুরের তিরোধান। তাঁর সমাধি অনুষ্ঠানে মহাপ্রভুর অংশগ্রহণ১৫৩৩, ৯ মার্চ 
মহাপ্রভুর তিরোধান১৫৩৩, ২৯ জুন

 

 

১৪৫৫, ৩১ আষাঢ়

 


আরো পড়ুন :  শিক্ষাষ্টক / শিক্ষাশ্লোকাষ্টক [শ্রীচৈতন্যদেব]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *