চৈতন্যদেবের জীবনের কালপঞ্জি

চৈতন্যদেবের জীবনের কালপঞ্জি

    চৈতন্যদেবের জীবনের কালপঞ্জি   চৈতন্যদেবের জীবনের প্রধান প্রধান ঘটনাগুলির প্রামাণিক সময়কাল  উল্লেখ করা হলো। সাহায্য নেওয়া হয়েছে সুখময় মুখোপাধ্যায়ের লেখা গ্রন্থ।     [ads id=”ads1″] ঘটনাবলি খ্রিস্টাব্দ শকাব্দ জন্ম ১৪৮৬ খ্রি. ১৮ ফেব্রুয়ারি ১৪০৭ শকাব্দ, ২৩ ফাল্গুন, দোলপূর্ণিমা, শনিবার, সন্ধ্যা প্রায় ৬টায় নামকরণ ১৪৮৬ খ্রি. ৯ মার্চ ১৪০৭ শকাব্দ, ১২ চৈত্র উপনয়ন ১৪৯৪…

বৈষ্ণব কবিদের সংক্ষিপ্ত পরিচয়, ৫ম পর্ব

বৈষ্ণব কবিদের সংক্ষিপ্ত পরিচয়, ৫ম পর্ব

৪১. রামানন্দ বসু   বর্ধমানের অন্তর্গত কুলীনগ্রামের মালাধর বসুর বংশজ (পৌত্র?) রামানন্দ বসু গৌরাঙ্গ পরিজন ছিলেন। প্রতি রথবাত্রার সময় কুলীন গ্রামের ভক্তদের নিয়ে রামানন্দ নীলাচলে যেতেন ও মহাপ্রভুর সান্নিধ্য লাভ করতেন। বসু রামানন্দের ভণিতায় বাংলা ও ব্রজবুলি পদগুলি উৎকৃষ্ট। চৈতন্যপ্রসাদবঞ্চিত রামানন্দ দাস নামে আর একজন পদকর্তার পদ রামানন্দ ভণিতায় পাওয়া যায়। ইনি চৈতন্যোত্তর যুগের কবি।…

বৈষ্ণব কবিদের সংক্ষিপ্ত পরিচয়, ৪র্থ পর্ব

বৈষ্ণব কবিদের সংক্ষিপ্ত পরিচয়, ৪র্থ পর্ব

          ৩১. বৃন্দাবন দাস   শ্রীচৈতন্যের অনুচর শ্রীবাসের ভ্রাতুষ্পুত্রী নারায়ণীর পুত্র বৃন্দাবন দাসের পিতৃপরিচয় অজ্ঞাত। আনুমানিক ১৫২০-২২ খ্রিস্টাব্দে কবির জন্ম। নবদ্বীপের নিকটবর্তী মামগাছি গ্রামের তাঁর প্রথমজীবন কাটে। শেষজীবনে তিনি বর্ধমানের দেনুড় গ্রামে থাকেন। চৈতন্যের প্রত্যক্ষ সংস্পর্শে না এলেও কবি নিত্যানন্দের ঘনিষ্ঠশিষ্য ছিলেন। আঃ ১৫৫০ খ্রিস্টাব্দে সুবিখ্যাত ‘চৈতন্যভাগবত’ রচনা করেন। খেতুরী উৎসবকালে…

বৈষ্ণব কবিদের সংক্ষিপ্ত পরিচয়, ৩য় পর্ব

বৈষ্ণব কবিদের সংক্ষিপ্ত পরিচয়, ৩য় পর্ব

            ২১. নরহরি (সরকার)   পদাবলি সাহিত্যে নরহরি প্রধানত দুজন। একজন ষোড়শ শতকের নরহরি সরকার। শ্রীখণ্ডের বৈদ্যবংশে এঁর জন্ম। পিতার নাম নরনারায়ণ দেব ; মাতার নাম গৌরীদেবী। বয়সে গৌরাঙ্গের চেয়ে চার-পাঁচ বছরের বড় ছিলেন। ছাত্রাবস্থা থেকে নিমাই-এর সঙ্গে পরিচিত ছিলেন। পরে গৌরাঙ্গের একান্ত ভক্ত হন এবং নবদ্বীপ নীলার অন্তরঙ্গ পরিকর…

শিক্ষাষ্টক / শিক্ষাশ্লোকাষ্টক [শ্রীচৈতন্যদেব]

শিক্ষাষ্টক / শিক্ষাশ্লোকাষ্টক [শ্রীচৈতন্যদেব]

        শিক্ষাষ্টক / শিক্ষাশ্লোকাষ্টক [শ্রীচৈতন্যদেব]     মহাপ্রভু শ্রীচৈতন্যদেবের একমাত্র রচনা নিদর্শন বলে কথিত ‘শিক্ষাষ্টক’ [শিক্ষাশ্লোকাষ্টক] -এর শ্লোকগুলি কবিরাজ কৃষ্ণদাস গোস্বামী তাঁর “শ্রীশ্রীচৈতন্যচরিতামৃত” গ্রন্থের অন্তলীলার বিংশ পরিচ্ছেদে বঙ্গানুবাদ সহ উদ্ধৃত করেছেন। মূল শ্লোকগুলি কবিরাজ গোস্বামী শ্রীরূপগোস্বামীর সংকলন গ্রন্থ “পদ্যাবলী” থেকে গ্রহণ করেছেন।   কৃষ্ণদাস কবিরাজ-এর মতে লীলাজীবনের শেষের দিকে শ্রীচৈতন্যদেব লোকশিক্ষা দিতে…

বৈষ্ণব পদাবলি : বিশেষ কিছু কথা [Baisnab Padavali ]

বৈষ্ণব পদাবলি : বিশেষ কিছু কথা [Baisnab Padavali ]

বাংলা সাহিত্যের মধ্যযুগে শ্রীচৈতন্যের আবির্ভাব সবথেকে উল্লেখযোগ্য ঘটনা। তাঁর প্রবর্তিত গৌড়ীয় বৈষ্ণব ধর্ম সেসময়ের বাংলাদেশে প্রবল উদ্দীপনা এনেছিল মানুষের মনে। পাশাপাশি বৈষ্ণব মহাজনদের পদাবলি বৈষ্ণব ধর্মের তত্ত্বকে প্রতিষ্ঠা দিচ্ছিল। গৌড়ীয় বৈষ্ণব ধর্মকে প্রতিষ্ঠা দিতে শুধুমাত্র শ্রীচৈতন্যদেব ও বৈষ্ণব পদকর্তারাই ভূমিকা পালন করেননি। আরো যাঁরা যুক্ত ছিলেন তাদের পরিচয় এখন দেওয়া হবেবিভিন্ন বৈষ্ণব দর্শনে তাঁদের বিভিন্ন…